সিলেটে হেফাজতের বিক্ষোভে বক্তারা নবী প্রেমিক শহীদ-গাজীদের রক্ত বৃথা যেতে দেবো না

প্রকাশিত: ৫:৪৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০১৯

সিলেটে হেফাজতের বিক্ষোভে বক্তারা নবী প্রেমিক শহীদ-গাজীদের রক্ত বৃথা যেতে দেবো না

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: ভোলায় বোরহান উদ্দিন থানায় আল্লাহ তা’আলা ও মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সম্পর্কে কটূক্তিকারী হিন্দু যুবক বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র ফাঁসির দাবীতে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলে নবীপ্রেমিক তৌহিদী জনতার ওপর পুলিশের বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ সিলেট।
মঙ্গলবার (২১ অক্টোবর) বাদ আছর বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সিটি পয়েন্টে গিয়ে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

হেফাজতে ইসলাম সিলেট জেলার নেতা মাওলানা রেজাউল করিম জালালীর সভাপতিত্বে ও মহানগর হেফাজত নেতা হাফিজ মাওলানা আহমদ সগীরের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তারা বলেন- বলেন, মহান আল্লাহ ও মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) অবমাননা কোন মুসলমানই বরদাশত করতে পারেন না। ইসলাম, দেশ ও জাতির দুশমনদের শাস্তির দাবিতে শান্তিপূর্ণ মিছিল মিটিং করা আমাদের ঈমানী দায়িত্ব ও নাগরিক অধিকার। এরকম শান্তিপূর্ণ কর্মসূচীতে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে নবীপ্রেমিকদের শহীদ করে লক্ষ কোটি তৌহিদী জনতার কলিজায় আঘাত করা হয়েছে। ভোলার মাটি আজ তাওহিদী জনতার রক্তে রঞ্জিত হয়েছে। ভোলার নবীপ্রেমিক শহীদ- গাজীদের এ রক্ত বৃথা যেতে দেবোনা ইনশাআল্লাহ। বক্তারা- অনতিবিলম্বে আল্লাহ তা’আলা ও মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) সম্পর্কে কটূক্তিকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি নিশ্চিত করতে হবে এবং আহতদের সঠিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে নবীপ্রেমিকদের ওপর গুলিকারী কুখ্যাত সেই পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সেই সাথে ধর্মাবমাননাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে আইন পাশ এবং উগ্রগ্রন্থী হিন্দু সংগঠন ইসকনকে নিষিদ্ধ ঘোষণারও জোর দাবী জানান। অন্যথায় বিশ্বনবীর সম্মান রক্ষায় দেশের কোটি কোটি নবীপ্রেমিক তৌহিদী জনতা নাস্তিক- মুরতাদ তথা ইসলাম বিদ্বেষীদের বিরুদ্ধে সারাদেশে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তুলত বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন সিলেটে হেফাজত নেতৃবৃন্দ।

মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- মহানগর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোস্তাক আহমদ খান, মাওলানা খলিলুর রহমান, মাওলানা ইকবাল আহমদ, মাওলানা আতাউর রহমান, মাওলানা শাহ মমশাদ আহমদ, মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাব, মাওলানা আব্দুল মুছব্বির, মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, গাজী রহমত উল্লাহ, প্রিন্সিপাল মাহমুদুল হাসান, মাওলানা এমরান আলম, মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা জাহিদ উদ্দিন চৌধুরী, মাওলানা সামিউর রহমান মুসা, মাওলানা সামসুদ্দিন মোহাম্মদ ইলিয়াছ, মাওলানা এমরান আলম, মাওলানা তাজুল ইসলাম হাসান, মাওলানা মখলিছুর রহমান, মুফতি রশিদ আহমদ, মাওলানা সৈয়দ সালিম ক্বাসেমী, মাওলানা ছদরুল আমিন, মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, মাওলানা আসলাম রহমানী, শেখ মুজিবুর রহমান নানু মিয়া, মাওলানা আখতারুজ্জামান, মাওলানা হাফিজ আব্দুল হক মওদুদ, মাওলানা মুশফিকুর রহমান মামুন, মাওলানা নিয়ামত উল্লাহ খাসদবরী, মাওলানা আব্দুল খালিক, হাফিজ ফরহাদ, মাওলানা লুৎফুর রহমান, মাওলানা ফাহাদ আমান, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, জাফর ইকবাল, হাফিজ ফয়েজ উদ্দিন, মাওলানা রিয়াজ মামুন, মাওলানা ছানা উল্লাহ, দেলওয়ার হোসেন ইমরান, আফজাল হোসাইন, হাফিজ জামিল আহমদ প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ পুলিশের গুলিতে শহীদদের শোক সন্তুপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন মোনাজাত করেন হেফাজত নেতা মাওলানা আতাউর রহমান।

সিলেটপ্রেস/ ২২ অক্টোবর ২০১৯/ রাকিব হাসান

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ