সিলেটে আ’লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে অর্ধ কোটি টাকার ব্যানার বাণিজ্য

প্রকাশিত: ৫:৪৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯

সিলেটে আ’লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে অর্ধ কোটি টাকার ব্যানার বাণিজ্য

জাবেদ এমরান : ৫ ডিসেম্বর সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন। জেলা ও মহানগর কমিটিতে পদ প্রত্যাশীদের ব্যানার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে সিলেট নগরী। সরকারি বেসরকারি স্থাপনায়, ফুট ওভার ব্রিজে, বৈদ্যুতিক তারসহ নানা স্থানে শোভা পাচ্ছে ডিজিটাল ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড ও আলোকসজ্জা।

সম্মেলনে ভোটার ও কেন্দ্রীয় নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে এসব ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড ছাপানো ও সাঁটানোতে খরচ হয়েছে আনুমানিক ৪০ লক্ষ টাকা। এমনটি নিশ্চিত করেছে একটি সংস্থা।

ডিজিটাল ব্যানার প্রস্তুতকারী সংস্থা আর্ট সাইন, ডট সাইন, ডিজিটাল সাইন, ইমেজ, সিলেট সাইন, মাহাদী, এ্যাড লিং সহ প্রায় ২৫টি ল্যাবে রাতদিন কাজ করে তৈরি করা হয় হাজার হাজার ফুট ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড। পূর্বে প্রতি ফুট ৮ থেকে ১৫ টাকা করে ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড প্রিন্ট করলেও নান অজুহাতে সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেয়া হয় ১৩ থেকে ১৮ টাকা। কোথাও আরে বেশি। যা কয়েকবছরে ছাপানো হয়নি সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ১৫ দিনে তা ছাপানো হয়। পাশাপাশি এসব ব্যানার, ফেস্টুন সাঁটানোতে বাঁশ, কাঠে ও শ্রমিকের কদরও বেড়ে যায়।

সূত্র বলছে, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন দীর্ঘ ১৪ বছর ও মহানগর আওয়ামী লীগের দীর্ঘ ৮ বছর পর সম্মেলন হওয়ার কারণে প্রচার প্রচারণা বৃদ্ধির কারণ।

নগর ঘুরে দেখা যায়, সিলেট নগরী ব্যানার, ফেস্টুনের নগরীতে পরিণত হয়েছে। যেদিকে চোখ পড়ে সেদিকে রঙ বেরঙ এর ব্যানার, ফেস্টুন। সম্মেলনের উৎসবের আমেজে রঙ লেগেছে দলীয় নেতাকর্মী মনেও। ফুঁড়ফুড়ে মেজাজে তারা প্রতীক্ষার প্রহর গুনছেন প্রিয় নেতাকে নির্বাচন করতে। আর ভোটার ছাঁড়া কর্মীরা আগামীর নেতৃত্বে আসা নেতাকে বরণ করতে সেরে রেখেছেন সকল প্রস্তুতি।

তবে দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ কড়া নির্দেশনা দিয়ে রেখেছেন যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে সে বিষয়ে। স্থানিয় নেতারাও দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা করে নেতাকর্মীদের সংঘাত এরিয়ে চলতে কঠোর সতর্কবার্তা দিয়ে রেখেছেন। সম্মেলন চলাকালে প্রতিপক্ষ দলের কোনো দুষ্কৃতকারী যাতে বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে না পারে সেদিকেও তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখতে বলা হয়। যদিও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা সম্মেলনের পূর্বে থেকে নিয়োজিত থাকবেন।

জানা যায়, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে শীর্ষ পদে ১৪জন পদপ্রত্যাশী নেতা রয়েছেন। তার মধ্যে সভাপতি পদে ৯ জন ও সম্পাদক পদে ৫ জন। আর সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগে আছেন ১৪জন পদপ্রত্যাশী নেতা। সেখানে সভাপতি পদে ৬ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন ৮জন।

আরো পড়ুন : নাহিদ শূন্য সিলেট নগরী!

 

সিলেটপ্রেসডটকম /০৪ ডিসেম্বর ২০১৯/ এফ কে 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Send this to a friend