মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে মুক্তিযোদ্ধাদের লেখা বই প্রকাশ করা হবে : এসপি ফরিদ উদ্দিন

প্রকাশিত: ১১:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে মুক্তিযোদ্ধাদের লেখা বই প্রকাশ করা হবে : এসপি ফরিদ উদ্দিন

জাবেদ এমরান :: সিলেট পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন (বিপিএম) বীর মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করে বলেছেন, ছোটবেলায় বাবার মুখ থেকে মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনে বড় হয়েছি। দেশে যুদ্ধ চলাকালীন সময় আমাদের এলাকার নারী, তরুণীদের ধরে নিয়ে পাকবাহিনী নির্যাতন করে। আমাদের পরিবার পালিয়ে ভারতে আশ্রয় নেন। আমার চাচা তখন ইউনিয়ন মেম্বার ছিলেন। পাকিস্তানী বাহিনী আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দেয়। আমি চট্রগ্রামে অতিরিক্ত এসপি হয়ে চাকরী করা কালে দেখেছি মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তিরা শহীদমিনার ভাংচুর করেছে। কি বিবৎস অবস্থা। আজ মুক্তিযুদ্ধে পরাজিতরা বিভিন্ন স্থানে ঘাপটি মেরে বসে আসে।

বৃহস্পতিবার (১১ ডিসেম্বর) সিলেট জেলা পুলিশ লাইন্সের বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ এসপি এম. শামসুল হক মিলনায়তনে সিলেট জেলা পুলিশের আয়োজনে জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

দেশের অপশক্তিকে রুখে দিয়ে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধারা দেশের শীর্ষ সম্মানী ব্যক্তি। মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে মুক্তিযোদ্ধাদের খেলা বই প্রকাশনা করার উদ্যোগ নিয়েছি। প্রত্যেক উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তি সংগ্রামের সেই সময়কার বিষয় লিখে দিবেন। জেলা পুলিশ আপনাদের লেখা সংগ্রহ করবে। বাচাই করে বর্তমান ও পরবর্তী প্রজন্মের জন্য যুদ্ধকালীন সময়ের ইতিহাস তোলে ধরা হবে।

জিডি বা মামলা নিতে কোনো থানা পুলিশ হয়রানি করে, টাকা চায় আমাকে বলবেন। সাথে সাথে ওখান থেকে ওই অফিসারকে বদলি করবো। প্রত্যেকটা থানার ওসির সাথে কথা বলে রেখেছি। অসহায়, নির্যাতিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে নির্দেশ দিয়ে রেখেছি। জিরো ট্রলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হচ্ছে। কেউ ছাড় পাবার সুযোগ নেই। আগামীতে আরো বড় পরিসরে সিলেটের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে তিনি অনুষ্ঠান করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেণ।

সিলেট পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন বিপিএম এর সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর) মো: মাহবুবুল আলামের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি মো: কামরুল আহসান বিপিএম (বার), বিশেষ অতিথি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া বিপিএম, সিলেট রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি জয়দেব কুমার ভদ্র বিপিএম (বার)।

আরো বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সিলেট জেলা ইউনিট কমান্ডার শ্রী সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল, ডেপুটি কমান্ডার অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম (বীরপ্রতীক), ভবতোষ রায় বর্মণ, আব্দুল খালিক, আব্দুল মালেক (বীরপ্রতীক), বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফুর রহমান লেবু, বীর মুক্তিযোদ্ধা সদর উদ্দিন চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আশিষ কুমার দাস (অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার), বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট রফিকুল হক, সেলিম আহমদ ফলিক ও অন্যান্য বীর মুক্তিযোদ্ধা। আরো ছিলেন সিলেট জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মকর্তা, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ।

 

সিলেটপ্রেসডটকম /১২ ডিসেম্বর ২০১৯/এফ কে 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Send this to a friend