জকিগঞ্জে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ডাকাত ৬ মামলার আসামি

প্রকাশিত: ১:১৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৯

জকিগঞ্জে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ডাকাত ৬ মামলার আসামি

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: জকিগঞ্জে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ডাকাত ৬ মামলার আসামি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শনিবার এমন তথ্য জানিয়েছেন জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মো. আব্দুন নাসের।

তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে সিলেট জেলার কানাইঘাট, বিয়ানীবাজার, গোলাপগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও মোগলাবাজার থানায় ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে ছয়টি মামলা রয়েছে। তবে গতকাল শুক্রবার রাতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সে নিহত হয়।

নিহত আব্দুস শহীদ ওরফে ফুলু (৩২) মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা থানার ধর্মদেহী গ্রামের মৃত নানু মিয়ার ছেলে।

জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. আব্দুন নাসের জানান, কাজলসার ইউনিয়নের মরিচা এলাকায় শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ডাকাতির প্রস্তুতি চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে পুলিশ অবস্থান নেয়। কিন্তু পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে ডাকাত দলের সদস্যরা গুলি ছুড়ে। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এক পর্যায়ে ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় আবদুস শহীদ ওরফে ফুলুকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে জকিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, ধারালো ও দেশী অস্ত্র, তালা ভাঙার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়াও বন্দুকযুদ্ধে জকিগঞ্জ থানার এসআই কল্লোল গোস্বামী, এসআই জহিরুল ইসলাম, এএসআই জিয়া উদ্দিনসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরে পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেন।

এদিকে ডাকাত দলের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জকিগঞ্জ-বিয়ানীবাজার পুলিশ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়। পরে তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপস্থিত হয়ে আহত পুলিশদের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Send this to a friend