স্বাগত ২০১৮

 
 

65656

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: স্বাগত ২০১৮। আজ ১ জানুয়ারি যাত্রা শুরু হলো আরো একটি ইংরেজি সালের।

গত মধ্যরাত ১২টা ১ মিনিটে নতুন বছরকে বরণ করেছে সবাই। মানুষ প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে সব অন্ধকার মুছে, বাধা ডিঙিয়ে আরো উঁচু চূড়ায় ওঠার। এ বছর বড় চ্যালেঞ্জের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে নির্বাচন। বছরটিতে একের পর এক ভোট উৎসব হবে। ভোটের বছরজুড়ে রাজনীতি কোন পথে চলবে-এই কৌতূহল আজ প্রবলভাবে অনুভূত হবে।

এক বছর থেকে আরেক বছরে এই যে যাত্রা- এ কেবল পঞ্জিকার বদলই নয়। প্রগতির পথে এগিয়ে চলছে দেশ। আজ বছর শুরুর দিনটিতে বই উৎসব হবে। লক্ষাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিটিতেই উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে নতুন বই।

গতকাল রবিবার প্রধানমন্ত্রী ২৮টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন যশোরে। সেখানে জনসভায় বলেছেন, ২০২১ সালে এ দেশের প্রতিটি ঘর আলোকিত হবে। পুরনো বছর ও নতুন বছরের ফারাকের মধ্যেও এ দেশে শত উদ্যোগ মানুষকে আশাবাদী করে তুলছে।

গত বছর ছন্দে পতন ঘটায় উত্তরের বন্যা, হাওরে ফসলডুবি, পাহাড়ে প্রাণহানি। রোহিঙ্গা সংকট আমাদের জন্য আরো বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। সমস্যাটির দ্রুত সমাধান আমাদের কাম্য। রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে ফেরা ও নিরাপদে অবস্থান নিশ্চিত করতে হবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে। চালের দাম সহনীয় স্তরে আনা, মাদকের আগ্রাসন নিয়ন্ত্রণ, খুনখারাবির লাগাম টেনে ধরাও বছরের বড় চ্যালেঞ্জগুলোর একটি। তবে খাদ্যঘাটতি মেটাতে আমদানি বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া অতীতে অনেক বড় বিপত্তি আমরা সামাল দিয়েছি, ভবিষ্যতেও পারব। ৪৬ বছরের স্বাধীন বদ্বীপ এই ভূখণ্ডে না খেয়ে আজ মানুষ মরছে না। উত্তরে মঙ্গা জয় করেছে মানুষ। দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষম দেশের উদাহরণ হয়েছে দেশটি। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার রায় থেকে শুরু করে চার নেতা হত্যাকাণ্ড, মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচার, চাঞ্চল্যকর অনেক মামলার দ্রুত বিচারের সক্ষমতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ।

এদিকে ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, বিরোধীদলীয় নেতা, সংসদের স্পীকার, বিএনপি চেয়ারপার্সনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক দলের নেতৃবৃন্দ।