সিসিক নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থী অ্যাডভোকেট জুবায়ের

 
 

5465242389

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট সিটি কর্পোরেশনের জামায়াতের হয়ে মেয়র পদে লড়বেন কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সিলেট মহানগর আমীর অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের।

বুধবার সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির ২ নম্বর বার হলে অনুষ্ঠিত আইনজীবিদের সাথে মতবিনিময় সভার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীতা ঘোষণা করেন তিনি। জেলা বারের সভাপতিসহ আইনজীবীরা তাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইসলামিক ল’ইয়ার্স কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আলিম উদ্দিন জানিয়েছেন।

বুধবার আসন্ন সিলেট সিটি নির্বাচনকে সামনে রেখে কাউন্সিলের উদ্যোগে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবি ও কাউন্সিলের সভাপতি অ্যাডভোকেট এ.এস.এম আব্দুল গফুরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আলিম উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লালা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ লালা বলেন- এডভোকেট জুবায়ের-এর মত জেলা বারে এমন সজ্জন, সৎ, যোগ্য ও মেধাবী আইনজীবি পেয়ে সত্যিই আমরা গর্বিত। এমন মিষ্টভাষী ও সাদামনের মানুষ মেয়র হবে শুনলে খুশীতে বুকটা ভরে যায়। আমি কোন দলের রাজনীতি করি না। রাজনৈতিক ব্যাপারে আমি কারো নিকট দায়বদ্ধ নই। এডভোকেট জুবায়ের মেয়র পদে প্রার্থী হলে দল-মতের উর্ধ্বে থেকে আমি সর্বাত্মকভাবে কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছি। এডভোকেট জুবায়ের এর দলকে ধন্যবাদ যে পূণ্যভুমি সিলেটের মেয়র পদে প্রার্থী হিসেবে তাকে মনোনীত করেছে। আইনজীবিরা শুধু আদালত নয়, দেশ পরিচালনায় অগ্রনী ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে। সিলেট জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আমরা আইনজীবি পরিবারের সদস্যকে পেয়েছি এবার সিসিক নির্বাচনেও আইনজীবি পরিবারের সদস্য এডভোকেট জুবায়েরকে মেয়র নির্বাচিত করতে চাই। এডভোকেট জুবায়ের-এর জন্য কাজ করতে আইনজীবি সমিতির সকল সদস্যদের প্রতি আহ্বান তিনি।

অ্যাডভোকেট হুসাইনুর রহমান লায়েছের কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সূচিত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদ। মত বিনিময় সভায় সিলেট জেলা বারের প্রায় দুই শতাধিক আইনজীবি উপস্থিত ছিলেন।

অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন- সিলেট জেলা বারের একজন সদস্য হিসেবে আমি সত্যিই গর্বিত। সভাপতি সহ আইনজীবি নেতৃবৃন্দ আমাকে যে সম্মান দেখিয়েছেন আসলে আমি তার যোগ্য নই। মানুষের প্রতি ভালবাসা, শ্রদ্ধাবোধ ও সৌজন্য আচরণ আমার পারিবারিক শিক্ষার অংশ। আমার দল আসন্ন সিসিক নির্বাচনে আমাকে মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করায় আমি সর্ব প্রথম আমার শ্রদ্ধেয় ও প্রিয় আইনজীবিদের সাথে মত বিনিময়ে বসেছি। আমি বলেছি সিলেট জেলা বার একটি পরিবার। সুতরাং এই পরিবার থেকে সাড়া না পেলে আমি নির্বাচন করবোনা। কিন্তু বার সভাপতি সহ আমার সহকর্মী আইনজীবি বৃন্দ আমাকে ভালবেসে যে সাড়া দিয়েছেন আমি তা কৃতজ্ঞতাচিত্তে স্মরণ করছি। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একটি সুন্দর নগর বিনির্মানের পাশাপাশি ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণে আমার প্রচেষ্ঠা অব্যাহত থাকবে।
বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট হোসেন আহমদ, সাবেক সভাপতি এডভোকেট জামিলুল হক জামিল, সিনিয়র আইনজীবি এডভোকেট মোহাম্মদ ইলিয়াস, এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, জেলা আইনজীবি সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট মো: শামসুল হক, যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট দিলোয়ার হোসেন দিলু ও এডভোকেট আকমল খান, সিনিয়র আইনজীবি এডভোকেট আব্দুল কুদ্দুস, এডভোকেট মিনহাজ উদ্দিন খান, এডভোকেট আব্দুল মতলিব চৌধুরী, এডভোকেট ওবায়দুর রহমান, এডভোকেট মো: আব্দুর রব প্রমুখ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- এডভোকেট সিরাজুল ইসলাম, এডভোকেট মর্তুজা আহমদ, এডভোকেট অমরেন্দ্র নারায়ন ভট্রাচার্য্য, এডভোকেট আব্দুল আহাদ, এডভোকেট আবুল কালাম, এডভোকেট ফজলুল হক, এডভোকেট আব্দুস সাত্তার, এডভোকেট এন আই মাসুম চৌধুরী, এডভোকেট মুমিনুর রহমান টিটু, এডভোকেট আব্দুল খালিক, এডভোকেট জামিল আহমদ রাজু, এডভোকেট মাসুদ আহমদ মহসিন, এডভোকেট কামরুজ্জামান, এডভোকেট রাশিদা সাঈদা খানম, এডভোকেট তৌহিদুল ইসলাম সোহাগ, এডভোকেট রাহিমা আক্তার মৌরী, এডভোকেট খানন আলম, এডভোকেট ইকবাল আহমদ, তানভীর আক্তার খান, এডভোকেট ইউসুফ খান, এডভোকেট আজিম উদ্দিন, এডভোকেট আব্দুল মুকিত, এডভোকেট ছায়াদ আহমদ, এডভোকেট শফিকুল ইসলাম, এডভোকেট ইমরান আহমদ, এডভোকেট রবিউল ইসলাম, এডভোকেট আজহারুল ইসলাম চৌধুরী, এডভোকেট আসাদুর রহমান, এডভোকেট মানিক উদ্দিন, এডভোকেট বাবুল মিয়া, এডভোকেট রব নেওয়াজ রানা, এডভোকেট হেদায়েতুল ইসলাম তানভীর, এডভোকেট ফজলে এলাহী ফয়সল ও ফয়সল আহমদ প্রমুখ।
মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দের মধ্য থেকে উপস্থিত ছিলেন- মহানগর সহকারী সেক্রেটারী মো: শাহজাহান আলী ও ড. নুরুল ইসলাম বাবুল।