সিলেট ১ আসনে জমিয়তের প্রার্থী শায়খ জিয়া উদ্দীন

 
 

Zia Uddin 1

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনে ২০ জোটের অন্যতম শরিক জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ প্রার্থী ঘোষণা করেছে। এ আসনে প্রার্থী হচ্ছেন জমিয়তের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা শায়খ জিয়াউদ্দীন। এমনটাই জানিয়েছে জমিয়তের একটি সূত্র।

সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও সদর উপজেলা নিয়ে ঘটিত এই আসনে ১৯৯৬ সালে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম প্রার্থী দিয়েছিল। মাওলানা রেজাউল করিম কাসেমী খেজুরগাছ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তখন জমিয়ত কোন জোটে ছিলো না। কিন্তু এবার বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম এই আসনে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করায় রাজনৈতিক অঙ্গণে নতুন হাওয়া বইতে শুরু করেছে।

অনেকেই বলছেন তাহলে কি জমিয়ত জোটে থাকবেনা? অবশ্য এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী।

গত ১৫ জুলাই শনিবার সিলেট জেলা জমিয়ত নেতাদের সাথে মতবিনিময় কালে মাওলানা ইউসুফী বলেন, আমরা এখনো ২০ দলীয় জোটে আছি, আমরা কারো কাছে ভিক্ষা চাইনা। আমাদেরকে ৫০ আসন দিতে হবে। অন্যথায় বিকল্প চিন্তা..। একই বৈঠকে সিলেট জেলা জমিয়তের নির্বাহী সভাপতির মাওলানা মুশাহিদ আহমদ দয়ামিরী বলেন, জোটের শরিক হিসেবে আমাদের ন্যায্য হিস্যা দিতে হবে।

তিনি বলেন, সিলেট বিভাগের ১৯ আসনে জমিয়ত প্রার্থী দেয়ার যোগ্যতা রাখে। তাই আমি আজকের সভায় -সিলেট ১ আসনে জেলা সভাপতি মাওলানা শায়খ জিয়া উদ্দীনকে প্রার্থী ঘোষণা করছি। একই সাথে তিনি বিভাগের প্রত্যেক আসনে প্রার্থী তালিকা চুড়ান্ত করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

এদিকে, জমিয়তে উলামাযে ইসলামের একাধিক সুত্র জানিয়েছে, আসন্ন নির্বাচনে জমিয়তকে সম্মান জনক আসন না দিলে দলটি বিকল্প চিন্তা করতে বাধ্য হবে। সিলেট জেলার ৬ টি আসনের মধ্যে ২ টিতে কযেক বছর ধরে মাঠ পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছেন সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শায়খুল হাদীস মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক ও সিলেট-৪ (জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট, কোম্পানীগঞ্জ) আসনে জেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান। এই দুই আসনে ছাড় না দিলে সিলেটের প্রতিটি আসনেই দলীয় প্রার্থী নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে জমিয়ত।