সিলেট সদর হাসপাতালে ফ্যান ছিটকে পড়ে মহিলা আহত

 
 

7777সিলেট সদর হাসপাতালে ফ্যান ছিটকে পড়ে অ্যাটেন্ডেন্ট এক মহিলা গুরুতর আহত হয়েছে। আত্মীয়-স্বজন কেউ না থাকা অবস্থায় মায়ের কাছেই পড়ে আছেন তিনি। ১৯ এপ্রিল বুধবার রাত ৯টায় নগরীর চৌহাট্টাস্থ সিলেট সদর হাসপাতালের ১ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, মৌলভীবাজার জেলার সদরের কান্দিগাঁওয়ের মরহুম কলিম উল্লাহর বিধবা লেচু বিবি (৭০) দীর্ঘপ্রায় ১মাস ধরে সিলেট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। একমাত্র বিবাহিত মেয়ে শিরীন বেগম পলি (২৪) ছাড়া তাঁর আর কেউ নেই। বুধবার লেচু বিবির দেহে সার্জারি হলে মেয়ে শিরীন বেগম পলি অ্যাটেন্ডেন্ট হয়ে তাকে দেখাশোনা করতে সিলেট সদর হাসপাতালে আসে। রাত ৯টার দিকে পার্শ্ববর্তী এক্স-১ বেডের উপরে থাকা একটি শিলিং ফ্যান তার উপর ছিটকে পড়ে।

এতে শিরীন গুরুতর আহত হয় এবং তার কান বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সদর হাসপাতালের কোনো লোক বা চিকিৎসক এগিয়ে না আসায় ওয়ার্ডের রোগীদের সাথে থাকা লোকজন গুরুতর অবস্থায় শিরীনকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরন করেন। সেখানে চিকিসারত অবস্থায় জ্ঞান ফিরলে কেউ না থাকায় সে আবার ফিরে আসে মায়ের কাছেই। বর্তমানে শিরীন মায়ের কাছেই সিলেট সদর হাসপাতালে কাতরাচ্ছে। হাসপাতাল সূত্র জানায়, দূর্ঘটনার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষসহ পরিচালকের পক্ষে কেউই খোঁজ নেন নি। এতে করে রোগী ও অ্যাটেন্ডেন্টসহ সকলের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। জরাজীর্ন সিলেট সদর হাসপাতালটি একেবারে বে-ওয়ারিশ হয়ে পড়েছে বলে অনেকে মন্তব্য করেছেন।