সিনেমার প্রযোজক হতে চান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

 
 

9788সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ভবিষ্যৎ নিয়ে গুঞ্জন থামছেই না। কোথায় যাবেন তিনি, ফুটবল ছাড়ার পর কী করবেন- কোন কিছুই সঠিকভাবে কখনও বলেন না তিনি। যে কারণে নতুন নতুন তথ্য এবং গুঞ্জন ভেসে আসে ভক্ত-সমর্থকদের সামনে। ফুটবল ক্যারিয়ারেও তার গন্তব্য অনিশ্চিত। রিয়াল মাদ্রিদে দীর্ঘ সময় কাটিয়ে দেয়ার পরও মাঝে-মধ্যে গুঞ্জন ভেসে আসে, ম্যানইউতে পাড়ি জমাচ্ছেন তিনি। কিংবা, কখনও শোনা যায়, রিয়াল ছেড়ে অন্য কোথাও চলে যাবেন।

তবে, গুঞ্জন যাই থাক, ফুটবল ছাড়ার পর রোনালদো কী করবেন, সেটা আপাতত নির্ধারণ করে ফেলেছেন তিনি। ফুটবল ছাড়ার পর সিনেমার প্রযোজক হতে চান বলে জানিয়ে দিয়েছেন ৫ বারের ফিফা বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

তবে এই মুহূর্তে ফুটবল নিয়েই ভাবতে চান রিয়াল মাদ্রিদের এই তারকা। যদিও এখন তার বয়স ৩২। ফুটবল ছাড়ার পর কী করবেন, সে চিন্তা এখন থেকেই তাই শুরু করে দিতে পারেন তিনি। রোনালদো বলেন, ‘আমি চাই সিনেমা তৈরি করতে।’

একই সঙ্গে ব্যবসায়ী হওয়ারও ইচ্ছা রোনালদোর। যদিও ইতিমধ্যেই ব্যবসায়ী হিসেবে বেশ নাম কুড়িয়েছেন তিনি। স্কাই ইতালিয়ানের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরোকে দেয়া সাক্ষাৎতকারে রোনালদো নিজেই জানিয়েছেন, ‘এখনই আমার হোটেল রয়েছে, রয়েছে জিমনেশিয়াম, নাইকির সঙ্গে পোশাকের লাইন- সুতরাং নিজেকে আমি একজন ব্যবসায়ী হিসেবে দেখতেই পারি।’ জানুয়ারিতে প্রকাশ হবে রোনালদোর এই সাক্ষাৎকার।

তবে এই মুহূর্তে ফুটবল নিয়েই ভাবতে চান রোনালদো। তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি যেটা (ফুটবল) নিয়ে আছি, সেটা নিয়েই ভাবতে চাই। যদিও আমি জানি, ফুটবল ছাড়ার পর আমার জীবন কিভাবে কাটবে, কেমন যাবে। ফুটবল ছাড়ার পর নিশ্চিত আমার জীবনটা খুব সুন্দর যাবে। আমি নিশ্চিত। এটা এ কারণে বলছি না যে আমার অর্থ-বিত্ত রয়েছে। কিন্তু ফুটবল ছাড়ার পর যা করবো, সেগুলোর জন্যই আমি সুখি থাকবো।’

ফুটবলে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার আগেই ইতালিতেই পাড়ি জমাতে চেয়েছিলেন বলে জানালেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তিনি বলেন, ‘২০০৩ সালেই জুভেন্তাস আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। ওই সময়ই ইতালিয়ান ফুটবল যে আমার প্রতি আগ্রহ দেখিয়েছিল, এ কারণে আমি খুশি। তবে ম্যানইউতেই শেষ পর্যন্ত গিয়েছি আমি। কারণ, সিরি-এ র চেয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগকেই বেশি পছন্দ করতাম।’