লড়াই করেই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে : গয়েশ্বর

 
 

888সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন- ‘আওয়ামী দুঃশাসনে অতিষ্ঠ জাতির মুখে আজ একটাই কথা আমরা ভাল নেই। বিএনপি শতভাগ গণতান্ত্রিক ও নির্বাচনমুখী দল। আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি অবশ্যই অংশ নেবে, তবে শেখ হাসিনার অধীনে নয়। তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মাইনাস করে কোন নির্বাচন এদেশে হতে দেয়া হবেনা। নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল করে মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করেই আমরা নির্বাচনে যাবো। আমরা সে লক্ষ্যেই এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের বিজয় অতি সন্নিকটে। অবৈধ সরকারের পায়ের তলায় মাঠি নেই। যতই হুমকী ধামকী এবং ষড়যন্ত্র হোক না কেনো আমরা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করেই ছাড়বো। জনগণ প্রস্তুত রয়েছে নেতাকর্মীরা মাঠে নামলেই জনতার বিজয় সুনিশ্চিত। এদেশ কারো পৈতৃক সম্পত্তি নয়। ভুলে গেলে চলবেনা ২০১৪ সালের বিএনপি এখন আর নেই। আত্মসমর্পন করার চেয়ে পরাজয় বরন করাই শ্রেয়। সুতরাং শেষ যুদ্ধের জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিতে হবে। ডাক আসা মাত্রই মাঠে নামতে হবে। মনে রাখতে হবে মাইরের উপর কোন ঔষধ নাই। লড়াই করেই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে।’

তিনি বলেন- ‘শেখ হাসিনা ও গণতন্ত্র পরস্পর সাংঘর্ষিক আর বেগম খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্র একে অপরের পরিপুরক। শেখ মুজিব গণতন্ত্র হত্যা করেছেন, শহীদ জিয়া বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। আওয়ামীলীগ যখনই ক্ষমতায় গিয়েছে তখনই গণতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হলো গণতন্ত্র। আর মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ঘোষনা কিন্তু ঢাকা থেকে আসেনি। এসেছে চট্রগ্রাম কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে। আর তাও এসেছে শহীদ জিয়ার ঘোষনার মাধ্যমে। সুতরাং শহীদ জিয়াকে বাদ দিয়ে ইতিহাস হবেনা। বাংলাদেশের ইতিহাস-মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা এবং জিয়া মিলে একাকার।’

শনিবার সিলেট মহানগর বিএনপির কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা তাহসীনা রুশদীর লুনা, আলহাজ্ব এম. এ হক, খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, ঢাকা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মহানগর বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক ডা: শাহরিয়ার হোসেন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নী ও সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ।
সিলেট মহানগর ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মাসুদ আহমদের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সুচীত এবং নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের শহীদ সুলেমান হলে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় সিলেট জেলার বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সকল সদস্যবৃন্দ, সিলেট জেলার বিএনপি দলীয় সাবেক সকল সংসদ সদস্য ও বিগত সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীগণ, বিএনপি সিলেট মহানগর কার্যনির্বাহী কমিটির সকল সদস্যগণ এবং মহানগর এর অর্ন্তগত প্রত্যেকটি থানা ও ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ১নং সহ-সভাপতি, ১নং যুগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকবৃন্দ, মহানগর বিএনপি দলীয় মেয়র, কাউন্সিলারবৃন্দ, বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের মহানগর শাখার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
কর্মী সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজান, সিলেট মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এডভোকেট ফয়জুর রহমান জাহেদ, এডভোকেট হাবীবুর রহমান, হুমায়ুন কবির শাহীন, সালেহ আহমদ খসরু,  সিটি কাউন্সিলার ফরহাদ চৌধুরী শামীম, জিয়াউল গনি আরেফিন জিল্লুর, প্যানেল মেয়র রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, আব্দুস সাত্তার, জিয়াউল হক জিয়া, আব্দুর রহিম, মুফতী বদরুন নুর সায়েক, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, সাব্বির আহমদ বাচ্চু, বাবু নিহার রঞ্জন দে, আব্দুল আলীম দ্বিপক, সুদীপ রঞ্জন সেন বাপ্পু, আব্দুল ফাত্তাহ বকশী, আমির হোসেন, উপদেষ্ঠা কয়সর রশীদ চৌধুরী, এবিএম সাদেক, সরফরাজ আহমদ চৌধুরী, সৈয়দ বাবুল হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট শামীম সিদ্দিকী, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, সৈয়দ মঈনুদ্দিন সোহেল, দিনার খান হাসু, আলী হোসেন বাচ্চু, মাহবুব কাদির শাহী, এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, কোষাধ্যক্ষ এডভোকেট আবুল ফজল, সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী, মুকুল মোর্শেদ ও মাহবুব চৌধুরী, দফতর সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল করিম আলো।