যুক্তরষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা মিসবাহ আহমদ সংবর্ধিত

 
 

Ad. Misbha Uddin Pic 01বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ৫০বছর পূর্তি উদযাপন করতে চাই আমরা। আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে বিজয়ী করতে সবাইকে এক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ভোগের রাজনীতি পরিত্যাগ করে ত্যাগের রাজনীতি করতে হবে। যে রাজনীতি জাতির জনক বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান করে গেছেন। ছাত্রলীগ একমাত্র সংগঠন যে সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রাণ ও শেখ হাসিনার প্রাণ। তিনি বলেন, আমি যত দিন জীবত থাকতে তথদিন ছাত্রলীগের পাশে আছি, পাশে থাকবো। তিনি বলেন, লন্ডন থেকে ফেক্সের মাধ্যমে ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করা হয়, স্থগিত করা হয়। যা সম্পর্ন গঠনতন্ত্র বিরোধী। লন্ডনে বসে টাকা খেয়ে জামাত-শিবিরের লোকদের জামিন দিতে কাজ করা হচ্ছে। ফেক্স কমিটিতে যে কোন সময় জামাত-শিবির ঢুকতে পারে। ওয়ান ইলিভেনের দালালরা আবার আওয়ামীলীগে ঢুকার চেষ্টা চালাচ্ছে। সে দিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ তেলিহাওর ব্লকের উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী যুবলীগের তিন বারের নির্বাচিত সাবেক সভাপতি, বর্তমান যুক্তরষ্ট্র আওয়ামীলীগের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমদকে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, ছাত্রীগের গঠনতন্ত্র তোয়াক্কা না করে যখন তখন কেন্দ্র থেকে কমিটি বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে। এমনকি লন্ডন থেকে ফেক্সের মাধ্যমে ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করা হচ্ছে। একজন দোষীর কারণে একটি সংগঠনের এক বছর স্থগিত রাখা হয়। আবার একজন দোষী ব্যক্তির কারণে পুরো সংগঠন বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। যা গঠনতন্ত্র বিরোধী। একজনের দোষের দায়ে ১৪০জনকে ফাসি দেওয়া হলো।

গতকাল সিলেট নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য ও মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির সহকারী প্রক্টর এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও সিলেট মহানগর ছাত্রীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সুজেল আহমদ তালুকদারের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরষ্ট্র আওয়ামীলীগের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোটেক মাহফুজুর রহমান, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ শামীম আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কবির উদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এডভোকেট আজমল আলী, আওয়ামীলীগ নেতা মজীব উদ্দিন, মোগলাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল ইসলাম সায়েস্তা, সিলেট মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আছাদুজ্জামান আছাদ, যুবলীগ নেতা আব্দুর রকিব বাবলু, রোকন আহমদ সৈয়দ হাসিন আহমদ মিন্টু, মো. রমিজ উদ্দিন, নুরুল ইসলাম নিছন, আব্দুল মতিন। বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সদস্য সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য সাইফুর আহমদ সফু, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, রুহুল আমিন, খালেদুর রহমান, জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান। সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগও ছাত্রলীগ নেতা শেখ আখতার, ইঞ্জিনিয়ার জয়নাল আহমদ চৌধুরী, দুলাল আহমদ, মুরছালিন আহমদ তালুকদার, রাসেল আহমদ, মির্জা সেরওয়ান, মামুন আহমদ, খন্দকতার এনামুল হক এনাম, মোহাম্মদ আলী, কবিরুল ইসলাম কবির, মজনু আহমদ, রশেদুল ইসলাম রাশেদ, সালা উদ্দিন পারভেজ, সাইফুর রহমান, খালেদুর রহমান খালেদ, সোহেল আহমদ মুন্না, তোফায়েল আহমদ সানী, শাক্কুর আহমদ জনি, নিলয় কিশোর ধর জয়, শামসুজ্জামান, মাহমুদল করীম নেওয়াজ, এম এ মুহিব, সাইফুর রহমান রাজন, শাকিল আহমদ, সালা উদ্দিন আল মামুন, হাবিব আহমদ, সৌরভ আহমদ তালুকদার, মুস্তাক আহমদ, ছদরুল ইসলাম, পাভেল রব্বানী ইমরান, তারেক আহমদ, পিনাক দে পাপ্পু, মো. মামুন আহমদ, ফতেহ নুর রহমান, রুহেল আল মামুন, রাজিব তালুকদার, শেখ সাকিব, ইবাদ খান দিনার, সৌরভ জায়গীরদার, মাজেদ আহমদ, মাহফুজুর আহমেদ বাপ্পী, পাপ্পু আহমদ, জাবেদ আদনান, সঞ্চয় ঘোষ, ইমন দত্ত, সাদেক আহমদ, জয়নুল আহমদ ছাব্বির আলী, ইমন আহমদ, কামরান আহমদ ফাহাদ আহমদ, দিপরাজ দিপায়ন, আবীর আহমদ তুষার, মুনিম তালুকদার, রাহেল সিরাজ, সুজাত মিয়া, জামিল আহমদ, সংকর দাশ সুমেল। বিজ্ঞপ্তি
যুক্তরষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা মিসবাহ আহমদ সংবর্ধিত

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ৫০বছর পূর্তি উদযাপন করতে চাই আমরা। আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে বিজয়ী করতে সবাইকে এক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ভোগের রাজনীতি পরিত্যাগ করে ত্যাগের রাজনীতি করতে হবে। যে রাজনীতি জাতির জনক বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান করে গেছেন। ছাত্রলীগ একমাত্র সংগঠন যে সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রাণ ও শেখ হাসিনার প্রাণ। তিনি বলেন, আমি যত দিন জীবত থাকতে তথদিন ছাত্রলীগের পাশে আছি, পাশে থাকবো। তিনি বলেন, লন্ডন থেকে ফেক্সের মাধ্যমে ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করা হয়, স্থগিত করা হয়। যা সম্পর্ন গঠনতন্ত্র বিরোধী। লন্ডনে বসে টাকা খেয়ে জামাত-শিবিরের লোকদের জামিন দিতে কাজ করা হচ্ছে। ফেক্স কমিটিতে যে কোন সময় জামাত-শিবির ঢুকতে পারে। ওয়ান ইলিভেনের দালালরা আবার আওয়ামীলীগে ঢুকার চেষ্টা চালাচ্ছে। সে দিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ তেলিহাওর ব্লকের উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী যুবলীগের তিন বারের নির্বাচিত সাবেক সভাপতি, বর্তমান যুক্তরষ্ট্র আওয়ামীলীগের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমদকে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, ছাত্রীগের গঠনতন্ত্র তোয়াক্কা না করে যখন তখন কেন্দ্র থেকে কমিটি বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে। এমনকি লন্ডন থেকে ফেক্সের মাধ্যমে ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল করা হচ্ছে। একজন দোষীর কারণে একটি সংগঠনের এক বছর স্থগিত রাখা হয়। আবার একজন দোষী ব্যক্তির কারণে পুরো সংগঠন বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। যা গঠনতন্ত্র বিরোধী। একজনের দোষের দায়ে ১৪০জনকে ফাসি দেওয়া হলো।

গতকাল সিলেট নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য ও মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির সহকারী প্রক্টর এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও সিলেট মহানগর ছাত্রীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সুজেল আহমদ তালুকদারের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন যুক্তরষ্ট্র আওয়ামীলীগের মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মিসবাহ আহমদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোটেক মাহফুজুর রহমান, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ শামীম আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কবির উদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এডভোকেট আজমল আলী, আওয়ামীলীগ নেতা মজীব উদ্দিন, মোগলাবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল ইসলাম সায়েস্তা, সিলেট মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আছাদুজ্জামান আছাদ, যুবলীগ নেতা আব্দুর রকিব বাবলু, রোকন আহমদ সৈয়দ হাসিন আহমদ মিন্টু, মো. রমিজ উদ্দিন, নুরুল ইসলাম নিছন, আব্দুল মতিন। বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সদস্য সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য সাইফুর আহমদ সফু, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, রুহুল আমিন, খালেদুর রহমান, জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান। সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাজমুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগও ছাত্রলীগ নেতা শেখ আখতার, ইঞ্জিনিয়ার জয়নাল আহমদ চৌধুরী, দুলাল আহমদ, মুরছালিন আহমদ তালুকদার, রাসেল আহমদ, মির্জা সেরওয়ান, মামুন আহমদ, খন্দকতার এনামুল হক এনাম, মোহাম্মদ আলী, কবিরুল ইসলাম কবির, মজনু আহমদ, রশেদুল ইসলাম রাশেদ, সালা উদ্দিন পারভেজ, সাইফুর রহমান, খালেদুর রহমান খালেদ, সোহেল আহমদ মুন্না, তোফায়েল আহমদ সানী, শাক্কুর আহমদ জনি, নিলয় কিশোর ধর জয়, শামসুজ্জামান, মাহমুদল করীম নেওয়াজ, এম এ মুহিব, সাইফুর রহমান রাজন, শাকিল আহমদ, সালা উদ্দিন আল মামুন, হাবিব আহমদ, সৌরভ আহমদ তালুকদার, মুস্তাক আহমদ, ছদরুল ইসলাম, পাভেল রব্বানী ইমরান, তারেক আহমদ, পিনাক দে পাপ্পু, মো. মামুন আহমদ, ফতেহ নুর রহমান, রুহেল আল মামুন, রাজিব তালুকদার, শেখ সাকিব, ইবাদ খান দিনার, সৌরভ জায়গীরদার, মাজেদ আহমদ, মাহফুজুর আহমেদ বাপ্পী, পাপ্পু আহমদ, জাবেদ আদনান, সঞ্চয় ঘোষ, ইমন দত্ত, সাদেক আহমদ, জয়নুল আহমদ ছাব্বির আলী, ইমন আহমদ, কামরান আহমদ ফাহাদ আহমদ, দিপরাজ দিপায়ন, আবীর আহমদ তুষার, মুনিম তালুকদার, রাহেল সিরাজ, সুজাত মিয়া, জামিল আহমদ, সংকর দাশ সুমেল। বিজ্ঞপ্তি