বালাগঞ্জে যুবতী অপহরণের ২ মাস : মামলা দায়ের

 
 

balagonj pic copyসিলেটপ্রেস ডেস্ক :: বালাগঞ্জে এক যুবতীকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। গত ৭ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকাল ৪টায় বালাগঞ্জ উপজেলার গোরাপুর গ্রামের হুছন আলীর পুত্র শরিফুল আহমদ রুবেল তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।
এব্যাপারে অপহৃত জেনি বেগমের পিতা জহির উল্লাহ ১২ সেপ্টেম্বর বালাগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এ একটি মামলা দায়ের করেন। যার নম্বর ৪, তাং-১২-৯-২০১৭ইং।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, অপহরণকারী শরিফুল আহমদ রুবেল দীর্ঘদিন যাবত জেনি বেগমকে উত্যক্ত করে আসছিল। প্রায় ৭ মাস জেনি বেগম আমেরিকায় ছিলেন। আমেরিকা থেকে দেশে আসার পরও তার পিছু ছাড়েনি রুবেল। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৭ সেপ্টেম্বর জেনি বেগম বেড়ানোর উদ্দেশ্যে একই উপজেলার নুরপুর গ্রামের মোস্তাক আহমদের স্ত্রী জেবিন বেগমের বাড়িতে যান। এসময় জেনি বেগমের সাথে ছিলেন তিলকচানপুর গ্রামের মাহমুদ আলীর পুত্র সাইফুল আহমদ সিহাব। সিএনজি যোগে যাওয়ার সময় উপজেলার পেকুয়ার ব্রিজের পাশে যাওয়ার মাত্র অপহরণকারী শরিফুল আহমদ রুবেল ৪-৫ জন সহযোগী নিয়ে সিএনজির গতিরোধ করে এবং সিহাবকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ফেলে যায় ও জোরপূর্বক জেনি বেগমকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে আজ (বুধবার) ২ মাস ১২ দিন হলেও তাদের কোন খোঁজ মেলেনি।

এব্যাপারে বালাগঞ্জ থানার ওসি এসএম জালাল উদ্দিন বলেন, তাদেরকে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। যে-কোন সময় শরিফুল আহমদ রুবেল ও জেনি বেগম উদ্ধার হতে পারে।