প্রশিক্ষিত হামলাকারীরা প্রাণনাশের জন্য এসেছিল: ঢাবি উপাচার্য

 
 

232132

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন চলাকালে তার বাসভবনে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় সাধারণ বিক্ষোভকারীদের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে মনে করছেন না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান।

তার মতে, প্রশিক্ষিত হামলাকারীরা প্রাণনাশের উদ্দেশেই এই হামলা চালিয়েছে।

রোববার রাতে তার বাসভবনে হামলার পর সোমবার সকালে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

উপাচার্য বলেন, রাতে যে তাণ্ডব চালানো হয়েছে, তাতে কোনো শিক্ষার্থী সংশ্লিষ্ট নয়। একটি প্রশিক্ষিত ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী লাশের রাজনীতির জন্য এ তাণ্ডব চালিয়েছে।

বাসভবনে হামলাকারীরা মুখোশ পড়ে এসেছিল জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বাসায় যারা এসেছিল তারা লাশের রাজনীতি করতে এসেছিল। প্রাণনাশের জন্য এসেছিল। দেশকে অস্থিতিশীল করতে এসেছিল।’

এ ঘটনায় সরকার আইন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেবে বলে এ সময় আশা প্রকাশ করেন উপাচার্য।

কোটা সংস্কারের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে রোববার রাজপথ অবরোধকারী শিক্ষার্থীদের পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে তুলে দেওয়ার পর রাতে আন্দোলনকারীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালায়।

এ সময় তারা উপাচার্যের বাসভবনের ভেতরে ব্যাপক ভাংচুর করে। এছাড়া তারা বাসভবনের বাইরে থাকা ভাঙা আসবাবপত্র জড়ো করে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং সেখান থাকা একটি গাড়িতেও আগুন দেয়।

এ ঘটনায় রাতেই উপাচার্য ড. আখতারুজ্জামানকে ফোন করে তার খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।