প্রধানমন্ত্রীর নাম অঙ্কনে একজন ফলিক খানের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

 
 

0000জাহেদ আহমদ (সিলেটপ্রেস) :: সিলেটের গোলাপগঞ্জে চন্দরপুর-সুনামপুর ব্রিজের উদ্বোধনী নামফলকে ছিল বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নাম। কিন্তু বেশ কয়েক মাস আগে রাতের আঁধারে কে বা কারা নামফলকটি মুছে দেয়। উন্নয়নের রুপকার শেখ হাসিনার নামফলকে নাম নেই নজরে আসে একজন নেতার। যিনি ৯০-৮৯ দশকের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সাহসী যোদ্ধা, বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার নিরলস প্রাণ হিসেবে পরিচিত, আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মী যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ফলিক খান। তার নিজস্ব অর্থায়নে চন্দরপুর যুব-সমাজের সহযোগিতায় ১২ নভেম্বর রবিবার সেই নামফলকটি অঙ্কন করার মাধ্যমে আবারো ফুটে উঠে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নাম।

জানা গেছে, গত ৮-১০ মাস পূর্বে থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম ও ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপনা থেকে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের নাম দুর্বৃত্তরা রাতের অন্ধকারে মিটিয়ে দেয়। এরপর বৃষ্টিপাত, প্রখর রোদে ধীরে ধীরে নামফলকটি নষ্ট হয়ে লেখা মিটে যায়। এ ব্যাপারে বিগত কয়েক মাসেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের বা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কেউই এগিয়ে আসেনি।

অবশেষে চন্দরপুর যুব-সমাজের প্রচেষ্টায় ও আওয়ামী লীগ নেতা ফলিক খানের নিজস্ব অর্থায়নে এই কাজটি বেশ সুন্দর ও সহজভাবে সম্পাদন করা হয়। এ কাজের জন্য ফলিক খানকে উৎসাহিত করেন এলাকাবাসী এবং জানানো হয় অভিনন্দন ।