এমসি কলেজের ছাত্রাবাস খুলছে আজ

 
 

সিলেটপ্রেস ডেস্ক :: ছাত্রলীগের দুই পক্ষের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাস ভাঙচুরের ঘটনার ১৬ দিন পর বন্ধ থাকা ছাত্রাবাস খুলে দেয়া হচ্ছে আজ।

শনিবার বিকাল তিনটায় ছাত্রাবাস খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কলেজের অধ্যক্ষ নিতাই চন্দ্র চন্দ। তিনি বলেন,‘‘পরিচয়পত্র দেখে প্রকৃত শিক্ষার্থীদের ছাত্রাবাসে ওঠানো হবে। প্রত্যেক বৈধ শিক্ষার্থীকে আবাসিক কার্ড দেয়ার পাশাপাশি বহিরাগত, অবৈধ গেস্টদের থাকার ব্যাপারে নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে।’ ছাত্রবাস খুলে দেয়া হলেও ভাঙাচোরা রুমেই উঠতে যাচ্ছে আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন,কক্ষগুলো ভাঙচুর হওয়ার পর আর মেরামত করা হয়নি। কলেজের দায়িত্বশীল পর্যায় থেকে আমাদের পত্রিকা, শক্ত কাগজ কিংবা বোর্ড দিয়ে আপাতত চালিয়ে নেয়ার কথা বলা হয়েছে।

ইনকোর্স, ব্যবহারিক ক্লাস, ফাইনাল পরীক্ষা থাকায় কষ্ট করে হলেও তারা ছাত্রাবাস উঠছে বলে জানায় শিক্ষার্থীরা।

ভাঙচুর হওয়া দরজা-জানালার সংস্কার না করে শিক্ষার্থী তোলার ব্যাপারে জানতে চাইলে হোস্টেল সুপার জামাল উদ্দীন বলেন, প্রশাসনিক বিষয়াদি থাকায় নিয়ম মেনেই ছাত্রাবাস সংস্কার করা হবে।

গত ১৩ জুলাই ছাত্রলীগের দুই পক্ষের উত্তেজনার জেরে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসের তিনটি ব্লকের অন্তত ৫০টি কক্ষ ভাঙচুর করা হয়। ছাত্রাবাসে আধিপত্য নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা টিটু চৌধুরী ও হোসাইন আহমদের অনুসারীদের মধ্যে উত্তেজনার জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

ভাঙচুরের পর অনির্দিষ্টকালের বন্ধ ঘোষণা করা হয় কলেজ ছাত্রাবাস। গঠন করা হয় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি।

এ ঘটনায় ১৬ জুলাই ২৫ জনকে আসামি করে শাহপরাণ থানায় মামলা করেন কলেজ অধ্যক্ষ নিতাই চন্দ্র চন্দ। এদের মধ্যে ছয়জনকে গ্রেপ্তারের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।